কলাপাড়ায় মুক্তিযোদ্ধ হাত হা ভেঙ্গে দেয়ার ঘটনায় মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি

0
38

রিমন সিকদার, কলাপাড়া

পটুয়াখালীর কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের বীরমুক্তিযোদ্ধা শাহআলমের উপর সন্ত্রাসী হামলা ও হাত-পা ভেঙ্গে দেয়ার ঘটনায় মামলা করে বিপাকে পড়েছে তার পরিবার। মামলার প্রধান আসামী যুবলীগ নেতা ও টিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মশিউর রহমান শিমু এবং অপর আসামী তাঁর স্ত্রী বিএনপি নেত্রী খাদিজা আক্তার এলিজার সন্ত্রাসী বাহিনী ভুক্তভোগী পরিবার ও তাঁর আত্মীয় স্বজনদেরকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য অব্যাহত হুমকি দিয়ে আসছে। শনিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে কলাপাড়া সাংবাদিক ফোরামে এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটি-ই দাবী করেন আহত মুক্তিযোদ্ধা শাহ আলমের আত্মীয় স্বজন ও এলাকাবাসী। এই সংবাদ সম্মেলনে উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো: আল আমিন, সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ: রাজ্জাক, ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য এবং ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, মনিরুল ইসলাম, অহেদ হাওলাদার, ফারুক হোসেন, কামরুল হাসান গাজী, আনোয়ার হোসেন মাষ্টার, ছগির হোসাইন, সোহেল, আমজেদ হাওলাদার, হামিদুর রহমান খান, জিহাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ওই সংবাদ সম্মেলনে উত্তরচাকামইয়া গ্রামের আবদুল বারেক হাওলাদারের পুত্র মো: ছগির হাওলাদার লিখিত বক্তব্যে বলেন, শিমু চেয়ারম্যানের দাবী করা ১০ লক্ষ টাকা চাঁদা দিতে না পারায় সন্ত্রাসী বাহিনী আমার ফুফা বীরমুক্তিযোদ্ধা শাহ আলমকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দেয়। এঘটনায় গত ৩০ নভেম্বর কলাপাড়া থানায় একটি মামলা হয়। মামলা নং ২৮/২০২০। ওই মামলায় পুলিশ শিমু চেয়ারম্যান ও তাঁর স্ত্রী এলিজাসহ কতিপয় আসামীকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারের পর চাকামইয়ার ক্বারী মো: রুহুল আমিনের ছেলে আবিরের নেতৃত্বে ২০/২৫ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মামলার বাদী মুক্তিযোদ্ধা শাহ আলমের স্ত্রী আকলিমা বেগমসহ বাদীর আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকী দিচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার বাদীসহ আত্মীয় স্বজনরা চরম শ্বঙ্কা এবং নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে তাঁর লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ্য করেন। এছাড়াও তিনি বলেন, শিমু চেয়ারম্যানের বাবা টিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সৈয়দ আখতারুজ্জামান কোক্কা মুক্তিযোদ্ধা শাহ আলমের উপর হামলার ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়া এবং ন্যায় বিচারকে ব্যাহত করার উদ্দেশ্যে গত ৪ ডিসেম্বর কলাপাড়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের কাছে মনগড়া বানোয়াট ও অসত্য তথ্য দিয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করেন। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে তিনি যে সকল উক্তি করেছেন তা সম্পূর্ন মিথ্যা এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত। মো: ছগির উক্ত বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here