কিশোর মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক মাহবুব (৪র্থ পর্ব)

0
97

নুরুল আমিন

৮. মাহবুবুর রহমানের মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়ার ব্যাপারে তার মা জানতেন না। প্রতিবেশী একজনের কাছে জানতে পেরে তার মা তাকে জিজ্ঞেস করলেন- মাহবুব, শোনলাম, তুই নাকি যুদ্ধে যাস? তুই এতটুকু ছেলে কিসের যুদ্ধ করবি? আমার খুব ভয় হয় বাবা। যদি তোর কিছু হয়ে যায়…… । মাহবুব তার মাকে থামিয়ে বললো, ভয় নেই মা। তুমি কিচ্ছু ভেবো না, মা। আমার কিচ্ছু হবে না। এই দেশ, এই মাটি, এই দেশের মানুষ একবুক আশা নিয়ে আমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। পাকিস্তানিরা আমাদের গোলাম বানিয়ে রাখতে চায়। আমরা মুক্তি চাই। গ্রামের মানুষেরা যুদ্ধে গেছে মা। আমিও যুদ্ধে যাই। মা, তুমি বাধা দিও না। আমরা স্বাধীনতা চাই। তখন তার মা বললেন, তুই সাবধান থাকিস বাবা।
৯. তিনি যখন যুদ্ধে যান, তখন তার ছোট ভাই মাহফুজুর রহমান ও বোন সাহিদা বেগম মায়ের কাছে গিয়ে বলতো – মা, ভাইয়া কই যায়? মা মোহসেনা বেগম বলতেন, যুদ্ধে যায়। তারা বলতো – যুদ্ধ কী মা! আমরাও যুদ্ধে যাবো। ছোট দুটি অবুঝ ভাই-বোনকে বুকে জড়িয়ে ধরে মাহবুবুর রহমান বলতেন, তোদের মুখে হাসি ফোটাবার জন্য, মায়ের সম্মান রক্ষা করার জন্য, লাল-সবুজের পতাকার জন্য যুদ্ধ করি। মা তুমি ওদের দেখে রেখো। আদর দিও। বাবা বাড়ি এলে বলিও, আমি ভালো আছি।

লেখকঃ সাংবাদিক, কলামিস্ট, কথাসাহিত্যক, কবি ও প্রাবন্ধিক। লালমোহন, ভোলা। nurulamin911@gmail.com. 01759648626.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here