চরফ্যাশনে ৭০লাখ টাকা প্রতারণা মামলার আসামি ঢাকায় থেকে গ্রেপ্তার

0
76

কে হাসান সাজু, চরফ্যাশন

ভোলার চরফ্যাশন সদর থানা পুলিশ ৭০ লাখ টাকা প্রতারণা মামলার এক আসামিকে ঢাকা আশুলিয়া থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আদালতে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হলে আদালত ২ রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

সূত্রে জানা গেছে, চরফ্যাশন উপজেলার বিভিন্ন বিভিন্ন বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধানদের কাছ থেকে বিদ্যালয়কে কল্যান ট্রাস্টের অন্তর্ভূক্ত করণের নামে ৭০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় ওই প্রতারক চক্র।

শনিবার (৪জুলাই) চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আরেফিন জানান, ওসি তদন্ত মুরাদ হোসেনের নেতৃত্বে থানা পুলিশ প্রতারণা মামলার প্রধান আসামি মাইনুল ইসলাম শেখ মানিক (৪৪) নামের একজনকে আটক করে চরফ্যাশন থানায় আনা হয়েছে। তার পিতার নাম মো. জাবেদ আলি সে সাভার আশুলিয়ার ৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মাইনুল ইসলাম শেখ মানিক (৪৪) ৩টি শিশু কল্যান প্রাথমিক বিদ্যালয় কল্যান ট্রাস্টের অন্তর্ভূক্ত করে দেওয়ার কথা বলে ২০১৮ সালের আগস্ট মাসের ২৮ তারিখে মামলার বাদি চরফ্যাশন পৌর ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নুরুল ইসলামের ছেলে মো. মনিরুল ইসলামসহ ভুক্তভোগী ১৮জনের কাছ থেকে উপস্থিত সাক্ষীগণের সম্মুখে নগদ ২৪ লাখ ৪১ হাজার টাকা ও পরবর্তী ১লা নভেম্ব/২০১৮ তারিখ এবং ১১আগষ্ট/

১৯ ইং তারিখ পর্যন্ত ডাচ বাংলা, ইসলামী,জনতা ও রূপালী ব্যাংকের বিকাশের মাধ্যমে ৪৫ লাখ ৫৯ হাজার ৫শ ২৯ টাকা নেয়। পরবর্তীতে ২০১৯ সালের মধ্যে ৩টি শিশু কল্যান প্রাথমিক বিদ্যালয় কল্যান ট্রাস্টের অন্তর্ভূক্ত করে দিবে বলে মৌখিকভাবে চুক্তিবদ্ধ হয়।

চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আরেফিন বলেন, চুক্তি ভঙ্গ করায় মনিরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি বাদি হয়ে চরফ্যাশন সদর থানায় মানুল ইসলাম শেখ মানিককে প্রধাণ আসামি করে তার স্ত্রী রোকসানা আকতার (৩৫) ও ইনামুল হক ইমরান হোসেন (৩২) কে আসামি করে প্রতারণার অভিযোগ করলে গতমাসের জুন মাসের ২৯ তারিখ মামলাটি রুজু করা হয় মামলা নং ১১।

আসামিকে দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ তার বিরুদ্ধে ৫দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত দু‘দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here