চরফ্যাসনে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে হয়রানী মুলক মিথ্যা মামলা দায়ের

0
44

কে হাসান সাজু, চরফ্যাসন

ভোলা চরফ্যাসনে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত নুরনবী নামের প্রতিপক্ষ এক যুবকে পুঁজি করে মারধরের অভিযোগ তুলে আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের মিনাবাজারের জমি বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মামলা দায়েরের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সোমবার রাতে আহতের ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে স্থানীয় বাজারের ব্যবসায়ীও ঘর মালিকদেরসহ ১৪ জনকে আসামী করে চরফ্যাসন থানায় মামলা দায়ের করেন।
জানাযায়, সম্প্রতি সময়ে নজরুল ইসলাম ও নুরনবীগংরা আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের মিনাজারের গলি পথ জবর দখল করে বাজার উন্নয়নের প্রকল্পের ওপর পাকা ঘর নির্মান কাজ শুরু করেন। এনিয়ে বাজার ব্যবসায়ী ও ঘর মালিকদের সাথে তাদের বিরোধ চলমান আছে। স্থানীয় বাজারের ব্যবসায়ী ও ঘর মলিকরা নির্মান কাজ বন্ধ করে দেন। বিষয়টি নিয়ে শালিশ চলমান আছে। গত রবিবার সন্ধ্যায় চরফ্যাসন সদরের দুলারহাট সড়কে মোটরসাইকেল ও অটোবোরাক মুখামুখি সংর্ঘষে দূর্ঘটনায় আহত হন প্রতিপক্ষ নুরনবী। সড়ক দূর্ঘটনাকে আড়াল করে বাজারের ব্যবসায়ী ও ঘর মালিকদের ফাঁসাতে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত নুরনবীকে জমি বিরোধ নিয়ে তাকে মারধরের অভিযোগ তুলে চরফ্যাসন থানায় ১৪ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।
বাদী মামলায় দাবী করেন, ঘটনারদিন সন্ধ্যায় তার ভাই চরফ্যাসন সদরে আসছিলেন। দুলারহাট সড়কের বিআরডিবি মোড় সংলগ্ন এলাকায় আসলে আসামীরা তার ভাই নুরনবীর পথ গতিরোধ করে তাকে মারধর করে গুরুতর আহত করে টাকা পয়সা মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। এঘটনায় আহতের ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামী করে চরফ্যাসন থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার আসামীরা জানান, ঘটনার সন্ধ্যায় তারা সবাই স্থানীয় মিনাবাজারে ও নিজ নিজ বাড়িতেই ছিলেন। প্রতিপক্ষ নজরুল ও নুরনবীগংরা বাজারের গলিপথ দখল করে পাকা ঘর নির্মান করা নিয়ে তাদের সাথে বাজারের ব্যবসায়ী ও ঘর মালিকদের বিরোধ চলমান আছে। বাজারের বিরোধীয় গলিপথে ঘর নির্মানের বিরোধকে পুঁজি করে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ব্যবসায়ী ও ঘর মালিকদের ফাঁসাতে নুরনবীকে মারধরের অভিযোগ তুলে হয়রানী মুলক মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।যার সাথে বস্তবতার কোন মিল নাই।
চরফ্যাসন থানার ওসি মো.মনির হোসেন মিয়া জানান, বাদীর এজাহারের ভিত্তিতে একটি মামলা নেয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত চলছে। তদন্ত স্বাপেক্ষে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here