দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষকে ত্রাণ দেওয়া হবে -তোফায়েল আহমেদ

0
12

আকতারুল ইসলাম আকাশ, ভোলা

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, সুপার সাইক্লোন ঘূণীঝড় আম্পানের ছোবল থেকে ভোলাকে রক্ষা করার জন্য ভোলার আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে। যাহাতে জনসাধারনের জানমাল রক্ষায় ঘূর্ণিঝড়ের সময় এবং পরবর্তীতে তাদের পাশে থেকে তাদের জানমাল রক্ষা করা যায়। তার জন্য নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এই বর্ষীয়ান নেতা।

নিজস্ব উদ্যোগে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে উপজেলার ধনীয়া ইউনিয়নসহ আরো কয়েকটি ইউনিয়নে১০ হাজার সাধারণ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধনকালে টেলিকনফারেন্সে এসব কথা বলেন। এর আগে ৩ দফায় তিনি ৩০ হাজার কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত সুন্দর পদ্ধতিতে গরীব মানুষের মাঝে আড়াই হাজার টাকা করে দিচ্ছেন। এই টাকা যেন সঠিকভাবে তাদের কাছে পৌঁছে। একই ঘরে একাধিক ব্যাক্তির নাম লিষ্ট করা যাবেনা। কেউ এ ধরনের তালিকা করলে তা বাদ দিতে হবে।

তোফায়েল আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে দেশে ব্যাপক ভাবে ত্রাণ তৎপরতা চালানো হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী দেশের শিল্প কল-কারখানার জন্য প্রায় এক লক্ষ কোটি টাকার প্রণোদনা দিয়েছেন। যতদিন পর্যন্ত এই করোনা দুর্যোগ থাকবে, ততোদিন পর্যন্ত এই ত্রাণ কার্যক্রম চলবে।

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, দল-মত নির্বিশেষে সকল গরীব মানুষ যাতে ত্রাণ পায় সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। ত্রাণ নিয়ে যাতে কেউ রাজনীতি করতে না পারে, সে ব্যাপারেও তিনি সকলকে সর্তক করে দেন। তিনি যার যার সামর্থ অনুয়ায়ী ত্রাণ নিয়ে দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়াতে সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

সকলকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান জানিয়ে তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রকৃত অসহায় মানুষদের এসব ত্রাণ পৌঁছে দিতে হবে। কারো সাথে যেন কারো স্পর্শ না হয়। কারণ করোনা একটি ছোঁয়াছে রোগ।

স্থানীয় প্রশাসনের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যেসব এলাকায় করোনা রোগী সনাক্ত হয়, সেসব এলাকা লকডাউন করে দিতে হবে। এক উপজেলা থেকে আরেক উপজেলায় যেন জনসাধারণ না যেতে পারে সে ব্যাপারে নজর দিতে হবে।

এসময় জেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মমিন টুলু, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কমর্কর্তা মো. মিজানুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ হাজ্বী, জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লবসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here