পৌরসভা নির্বাচন, কলাপাড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীকে কুপিয়ে জখম

0
2

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্কঃ

১৪ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দের পূর্বেই সহিংস হয়ে উঠেছে নির্বাচনী মাঠ। মঙ্গলবার (২৬জানুয়ারী) সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী বিপুল চন্দ্র হাওলাদারের সমর্থকদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর জখম হয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিদার উদ্দিন আহমেদ মাসুম’র সমর্থক রাকিবুল ইসলাম দীপ্ত (২২)। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শে.বা.চি.ম. হাসপাতালে রেফার করেন। আহত দীপ্ত উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বলে নিশ্চিত করেছে ছাত্রলীগ সূত্র। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিজ বাসা থেকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দীপ্ত মোটর সাইকেল নিয়ে শহরে আসছিল। তার মোটর সাইকেলটি শহরের কুমারপট্রিস্থ আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে পৌঁছার পর শহর ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জান শুভ ও তার সহযোগী ছাত্রলীগ কর্মী আলিফ মাহমুদ রুদ্র’র নেতৃত্বে ৫/৭ জনের একটি গ্রæপ চাপাতি দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে দীপ্তকে গুরুতর জখম করে। ঘটনার পর পর স্থানীয়রা তাকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরন করে।

এ বিষয়ে নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী, বর্তমান মেয়র ও শহর আওয়ামীলীগের সম্পাদক বিপুল চন্দ্র হাওলাদার বলেন, ’আমার নির্বাচনী প্রচারনা এখনও শুরু হয়নি। এছাড়া এ ঘটনার সাথে কোন কর্মী সমর্থক জড়িত নয়। ’ তবে এনিয়ে শহর আওয়ামীলীগের সম্পাদক ও কলাপাড়া বন্দর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি দিদার উদ্দিন আহমেদ মাসুম বলেন, ’নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থক শহর ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জান শুভ ও তার সহযোগীরা চাপাতি দিয়ে এলোপাথারি ভাবে কুপিয়ে আমার সমর্থক দীপ্তকে গুরুতর জখম করেছে।’
কলাপাড়া হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. অনুপ কুমার সরকার বলেন, ’দীপ্ত’র মাথা, ঘাড় ও হাতে ৫টি ধারালো অস্ত্রের জখম রয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শে.বা.চি.ম. হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।’

কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) আসাদুর রহমান বলেন, সন্ধ্যা ৬টার দিকে আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে দলীয় অভ্যন্তরীন কোন্দলের জেরে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে শহরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। থানায় কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here