প্রতিদিন অভুক্ত শতাধিক কুকুরকে খাওয়াচ্ছেন এমপি শাওন

0
24

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্কঃ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ভোলা জেলার সব উপজেলায় খাবারের দোকানপাট ও হোটেলগুলো বন্ধ। তাই খাবারের উচ্ছিষ্ট আর কুকুরের কপালে জুটছে না। ফলে খাবার না পেয়ে হিংস্র হয়ে উঠছে প্রাণীগুলো।
এ অবস্থায় ব্যতিক্রমী কার্যক্রম চালু রেখেছেন ভোলা-৩ আসনের এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন।
১ মে শুক্রবার দুপুরে লালমোহন সজিব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্কে থাকা এসব কুকুরকে খাবার দেয়া হয়। বেওয়ারিশ এসব কুকুর সাধারণত লালমোহন পৌর শহরের বিভিন্ন হোটেল-রেস্তোরার উচ্ছিষ্ট খাবার খেয়ে বেঁচে থাকে।
এর পরিপ্রেক্ষিতে ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন নিজেই প্রতিদিন এদের খাবারের ব্যবস্থা করে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।
এর আগে ভোলা জেলার লালমোহন উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের চাঁন মিয়া মাঝি বাড়ীর বৃদ্ধ সৈয়দ আহাম্মদ মাঝির বিধবা মেয়ে রিনা বেগম সরাসরি মোবাইলে ফোন করেন দ্বীপবন্ধু আলহাজ্ব নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, এমপি ১১৭ ভোলা-৩ কে। তার আকুতি মিনতি ও কান্নাজড়িত কন্ঠ শুনে প্রিয়নেতা রাত-১.৪৫ মিনিটে ছুটে যান রিনা বেগমের বাড়ী সাথে খাবার সামগ্রী ৫ কেজি চিড়া, ৫ কেজি চিনি, ৫ কেজি মুড়ি, ৫ কেজি ছোলা বুট, ৫ কেজি খেজুর ও রিনার অভুক্ত অবুঝ শিশুর জন্য ২ প্যাকেট দুধ নিয়ে।
সেখানে উপস্থিত হন পাশের বাড়ীর অনেক লোকজন। এমপি মহোদয় খাবার সামগ্রী ছাড়াও রিনার হাতে নগদ ৫০০০/- পাঁচ হাজার টাকা তুলেদেন। এবং একই বাড়ী প্রতিবন্ধী তিন পরিবারকে নগদ ১৫০০০/- পনের হাজার টাকা প্রদান করেন। স্থানীয় মিজান মেম্বারকে সরকার কর্তৃক প্রদত্ত সকল অনুদান প্রদানের নির্দেশ দেন। এটাই মানবতার মহান দৃষ্টান্ত।
এছাড়া তিনি নিজ আসনের মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেওয়ার জন্য হটলাইন নাম্বার চালু করেছেন। যেখানে কল দিলে খাদ্যসামগ্রী বাসা দিয়ে আসা হয়।
ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন জানান, করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় সবাইকে সরকারী নির্দেশনা মেনে নিজ নিজ ঘরে থাকা এবং সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। ঘরে থাকলেই এলাকার সব গৃহহীন ও অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here