বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের অর্থপেডিক্স বিভাগ লকডাউন

0
21

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্কঃ

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের অর্থপেডিক্স বিভাগের চিকিৎসক-নার্সসহ ১১জন করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পুরো অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে। একের পর এক রোগী তথ্য গোপন রেখে চিকিৎসা সেবা নিতে এসেছে। পরবর্তীতে তাদের অনেকের দেহে করোনা সনাক্ত হয়। তাদের কারণে এ অবস্থা সৃস্টি হয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এ ঘটনায় অর্থপেডিক্স বিভাগের দায়িত্বরত সকল চিকিৎসক-নার্সদের আইস্যুলেশনে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (৬ জুন) দুপুর একটা থেকে অর্থপেডিক্স বিভাগ লকডাউন করে স্বল্পপরিসরে মেডিসিন বিভাগের সঙ্গে অর্থপেডিকক্স সেবা চালু থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অর্থপেডিক্স বিভাগের রেজিস্ট্রার ডা. সুদীপ হালদার  বলেন, ‘এ পর্যন্ত অর্থপেডিক্স বিভাগে করোনা পজিটিভ দুই রোগী তথ্য গোপন করে ভর্তি হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছেন ওই ওয়ার্ডের সব ডাক্তার ও নার্স। পরবর্তীতে জানা গেছে দুই রোগী করোনায় আক্রান্ত। ওই দুই রোগীর মাধ্যমে অর্থপেডিক্স বিভাগের ১১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।’

শের-ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন  বলেন, ‘করোনা পজিটিভ দুই রোগী সাতদিন ধরে অর্থপেডিক্স বিভাগে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। তথ্য গোপন করায় সেখান থেকে একজন চিকিৎসক, সাত জন নার্স এবং তিন জন রোগী পজিটিভ হয়েছে। তাই অর্থপেডিক্স বিভাগ সাত দিনের জন্য বন্ধ করা হয়েছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here