ভোলায় দুর্যোগকালীন সময়ে মানবতার সেবায় ‘পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন’

0
20

কে হাসান সাজু,ব্যুরো চীফ (চরফ্যাসন)

ভোলা নভেল করোনাভাইরাস দুর্যোগকালীন সময়ে আত্মমানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে ভোলার উত্তরের অন্যতম সামাজিক সংগঠন ‘পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন’।
করোনাভাইরাস বাংলাদেশে আক্রান্ত শুরু হলে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একঝাঁক উদীয়মান তরুন অসহায় পরিবারকে খাদ্য ও নগদ অর্থ সহায়তা, জীবানুনাশক স্প্রে ছিটানো, সচেতনতামূলক মাইকিং, লিফলেট বিতরন, মাস্ক, হ্যান্ডস্যানেটাইজার, সাবান বিতরনসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে আসছে। এসব ব্যতিক্রমী কার্যক্রমের কারণে মানুষের ভূয়াসী প্রশংসায় ভাসছে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন। মানুষের মুখে মুখে শোনা যাচ্ছে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সুনাম।
মানুষের ভালোবাসা ও দোয়া নিয়ে আগামী দিনেও আত্মমানবতার সেবায় কাজ করে যেতে চায় পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন।
জানা যায়, ভোলা সদর উপজেলার ২নং পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের সন্তান মোঃ আনোয়ার হোসেন আত্মমানবতার সেবায় কাজ করার লক্ষ্যে ইউনিয়নের একঝাঁক উদীয়মান মেধাবী তরুনদেরকে নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেন ‘পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন’। প্রতিষ্ঠার পর থেকে সমাজসেবামূলক বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে ভোলা জেলায় ব্যাপক সুনাম অর্জন করে এই সামাজিক সংগঠনটি। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে স্মরণ করে রাখতে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেনের নিরলস পরিশ্রম, আর্থিক সহযোগিতায় একঝাঁক তরুকে নিয়ে আয়োজন করেছে ব্যতিক্রম ‘জেলে উৎসব’।
মাসব্যাপী এ উৎসবের আয়োজনের ফলে ভোলাসহ সারাদেশে ‘পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন’ ব্যাপক সুনাম ও পরিচিত লাভ করে। এছাড়াও ইউনিয়নের জরাজীর্ণ বিভিন্ন রাস্তা সংস্কার, জেলেদের দুর্ভোগ লাগবের জন্য খাল খনন, বৃক্ষরোপন, বিভিন্ন দিবস উদযাপন, খেলাধুলার আয়োজন করা, অসহায় পরিবারকে খাদ্য ও আর্থিক সহযোগিতাসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন। করোনাভাইরাসের মহামারী শুরু হলে সংগঠনের সকল সদস্যদের নিয়ে শুরু করেন বিভিন্ন কার্যক্রম। শুরুতেই করোনাভাইরাস সংরক্রমন প্রতিরোধের লক্ষ্যে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরন করেন। ফেরীঘাট, বিভিন্ন বাজার ও মসজিদে জীবানুনাশক স্প্রে ছিটানো, প্রত্যেক ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাইকিং, সাবান, মাস্ক, হ্যান্ডস্যানেটাইজার বিতরন করে সংগঠনের সদস্যরা। যোগ্যতার সাথে এসব কাজের নেতৃত্ব দেন পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন।
এরপর দিনমজুর, হতদরিদ্র অসহায় পরিবারের মধ্যে অভাব-অনটন দেখা দিলে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে শুরু হয় খাদ্য সামগ্রী বিতরন কার্যক্রম। পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন আর্থিক সহযোগিতা ও যোগ্য নেতৃত্বে সংগঠনের সকল সদস্য ও শুভাকাংখিদের নিরলস পরিশ্রম, আর্থিক  সহযোগিতায় করোনা দুর্যোগকালিন সময়ে ৮০০ শত ও ঈদ পরবর্তী ৬০০ শত সহ মোট ১৪০০ শত অসহায়, হতদরিদ্র, দিনমজুর পরিবারের তালিকা তৈরি করে বাড়ী বাড়ী গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়। কিছু কিছু পরিবারকে দেওয়া হয় অর্থ সহায়তা।
দুর্যোগকালীন সময়ে খাদ্য সামগ্রী পেয়ে অসহায়, দিনমজুর পরিবারে মুখে ফুটে উঠে আনন্দের হাসি। তারা বলেন, দুর্যোগকালীন সময়ে যখন আমরা অভাব-অনটনে দিন কাটাচ্ছি তখন কেউ আমাদের খবর নেয়নি। ঠিক সে সময়ে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। আমাদের প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী দিয়েছে। খাদ্য সামগ্রী পাওয়া এসব পরিবার পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন ও সদস্যদের জন্য দোয়া করেছে।
পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, মানবতার সেবায় কাজ করার লক্ষ্যে ইউনিয়নের একঝাঁক উদীয়মান মেধাবী তরুনদেরকে নিয়ে ‘পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন’ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। এই সংগঠনের মূল লক্ষ্যে হলো সমাজের সেবামূলক কাজ করা। সেই লক্ষ্য নিয়েই পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সদস্যদেরকে নিয়ে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।
এই সংগঠন প্রতিষ্ঠার পর থেকে জরাজীর্ণ রাস্তা সংস্কার, জেলে উৎসব, বৃক্ষরোপন, জেলেদের জন্য খাল খনন, জেলে স্কুল প্রতিষ্ঠা, রাষ্ট্রিয় বিভিন্ন দিবস উদযাপন, যুবকদেরকে খারাপ কাজ থেকে বিরত রাখতে খেলাধুলার আয়োজন করা, অসহায় মানুষদেরকে বিভিন্নভাবে সাহায্য সহযোগিতা করা হয়েছে। পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশনের সকল সদস্য ও শুভাকাংখিদের নিরলস পরিশ্রম, আর্থিক সহযোগিতায় করোনা দুর্যোগকালিন সময়ে ১৪০০ পরিবারের তালিকা তৈরি করে বাড়ী বাড়ী খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়। এছাড়াও জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো, জনসচেতনায় মাইকিং, মাস্ক বিতরণ, শিশুদের মাঝে বিস্কুট বিতরন, লকডাউনকৃত পরিবারের পাশে দাঁড়ানো সহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। সকলের সহযোগিতা ও ঐকান্তিক চেষ্টায় যুব ফাউন্ডেশনের শুধু করোনা দুর্যোগকালিন সময়ই নয় সবসময়ই মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। অতীতের মতোই যেকোন পরিস্থিতিতে পূর্ব ইলিশা যুব ফাউন্ডেশন মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকতে পারে সে জন্য ইলিশাবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here