ভোলায় মেঘনায় ছেলে জলদস্যুর কাছে জিম্মি, শুনেই মায়ের মৃত্যু

0
23

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্কঃ

ভোলার হাকিমুদ্দিন সংলগ্ন মেঘনায় জেলে ট্রলারে হামলা চালিয়ে জলদস্যুরা জাল, মাছসহ প্রায় ৮ লাখ টাকার মালামাল ছিনিয়ে নিয়েছে। এসময় কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছেন ট্রলারের মাঝিসহ ৯ জনকে। তাদের মধ্যে গুরুতর ৪ জনকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে ছেলের ওপর জলদস্যুর হামলা ও জিম্মি করে রাখার খবরে হার্টঅ্যাটাক করে মারা গেছেন ট্রলারের মাঝি মাইনুদ্দিন ভট্টোর বৃদ্ধা মা রিজিয়া বেগম।

হামলার শিকার ট্রলারের মাঝি মাইনুদ্দিন ভুট্টো জানান, দক্ষিণের কালকিনি এলাকা থেকে মাছ ধরে সদর উপজেলার তুলাতুলি মাছ ঘাটে আসার পথে রাত ২টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাকিমুদ্দিন সংলগ্ন মেঘনা একদল জলদস্যুরা তাদের ওপর হামলা চালায়।

এসময় ট্রলারের ৯ মাঝি মাল্লা ভুট্টো মাঝি, জাহাঙ্গীর, ইউসুফ ও মঞ্জুরকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে তারা। এ চারজনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ২ জনকে নদীতে ফেলে দেয় তারা। ছিনিয়ে নেয় ২ মন ইলিশ, সাড়ে ৪ লাখ টাকার জাল, ৮টি মোবাইল সেট, সোলার প্যানেলসহ প্রায় ৮ লাখ টাকার মালামাল। অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রেখে ভুট্টো মাঝির বাড়ি থেকে বিকাশে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপন আদায় করে।

একপর্যায়ে দস্যুরা তাদের নদীর মাঝে ট্রলারসহ ফেলে রেখে চলে যায়। সকালে তারা ট্রলার চালিয়ে তুলাতুলি ঘাটে আসে। ট্রলারের মাঝি মাল্লা সবার বাড়ি সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের তুলাতুলি এলাকায়।

এদিকে ছেলেকে জলদস্যুরা জিম্মি করে রাখার খবর শুনে ভুট্টো মাঝির মা রিজিয়া বেগম (৮০) হার্টঅ্যাটাকে মারা যান। পরিবার জানিয়েছে, সকাল ৮টায় দিকে রিজিয়া বেগমকে হাসপাতাল নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। দুপুর ২টায় জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানিয়েছেন, জেলে ট্রলার থেকে জাল মাছ ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি বোরহানউদ্দিন ও তজুমদ্দিন দুই উপজেলার মধ্যবর্তী এলাকায় ঘটায় সীমানা চিহ্ন করার জন্য পুলিশ কাজ করছে। স্থান চিহ্নিত হলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here