মনপুরার মেঘনায় রাতে দুই জেলে অপহরণ, অর্ধলক্ষ টাকায় মুক্তিপণে মুক্তি

0
25

মোঃ ছালাহউদ্দিন,মনপুরা

ভোলার মনপুরার মেঘনায় মাছ শিকারের সময় দুই জেলেকে অপহরন করে নিয়ে যায় হাতিয়ার জলদস্যু বাহিনী। পরে দস্যু বাহিনী মুঠোফোনে মুক্তিপণ দাবী করলে অপহৃত দুই জেলের আড়তদার অর্ধলক্ষ টাকা মুক্তিপণ পাঠালে শুক্রবার দুপুরে মুক্তি পেয়ে জেলেরা বাড়িতে ফিরে আসে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন ও মৎস্য আড়তদার আবুল কাশেম এবং মোঃ ছাত্তার।

এদিকে বারবার হাতিয়ার দস্যু বাহিনী জেলেদের অপহরণ করে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে মুক্তিপণ আদায় করলেও মনপুরা ও হাতিয়া কোস্টগার্ডের নিরব ভূমিকা পালন করায় হাজার হাজার জেলে ও মৎস্য আড়তদারদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। জেলেরা দস্যু দমনে কোস্টগার্ডের কার্যকর ভূমিকা পালনের দাবী করেন।

বৃহস্পতিবার রাত ১১ টায় উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়ার চরপাতালিয়ার পূর্বপাশে মেঘনায় দুই জেলের অপহরনের ঘটনা ঘটে।

মুক্তিপণে উদ্ধার হওয়া জেলেরা হলেন, উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের চরফৈজুদ্দিন গ্রামের বাসিন্দা মোঃ মহিউদ্দিন মাঝি ও দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ইসমাইল মাঝি।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে চরপাতিলা সংলগ্ন মেঘনা মাছ শিকারের সময় হাতিয়ার দস্যু বাহিনী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জ্বিত হয়ে হামলা চালায়। এসময় দস্যুরা দুই মাছ ধরার নৌকা থেকে মহিউদ্দিন ও ইসমাইল মাঝিকে ধরে নিয়ে যায়। পরে দস্যুদের আস্তানা নিয়ে অপহৃত মাঝিদের বেধড়ক মারধর করে। পরে রাতেই দস্যু বাহিনী দুই মাঝির মুক্তির বিনিময় মৎস্য আড়তদারদের মুঠোফোনে একলক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। শুক্রবার দস্যুদের সাথে রফাদফা করে অর্ধলক্ষ টাকা মুক্তিপণ দিলে মুক্তি পায় অপহৃত দুই জেলে। এছাড়াও দস্যু বাহিনী কোস্টগার্ড, পুলিশ ও সাংবাদিকদের অপহরনের বিষয় জানালে অপহৃত জেলেদের মেরে ফেলার হুমকী দেন।

এই ব্যাপারে অভিযোগ অ-স্বীকার করে মনপুরা কোস্টগার্ডের কন্টিজেন্ট কমান্ডার আবদুস সালাম জানান, চারদিকে মেঘনা বেষ্ঠিত মনপুরায় কোস্টগার্ডের প্রতিনিয়ত টহল চলছে। অপহরনের বিষয়টি এই পর্যন্ত কেউ জানায়নি। তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করলে মেঘনা দস্যু দমন সম্ভব বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এই ব্যাপারে মনপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অপহরনের ঘটনা শুনেছি। এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। তারপরও মেঘনায় দস্যু দমনে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here