রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র: সুরক্ষাব্যবস্থায় ব্যয় ২৪০০ কোটি টাকা

0
10

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভৌত সুরক্ষাব্যবস্থা (পিপিএস) নির্মাণ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে রাশিয়ার কোম্পানি জেএসসি এলরন। আজ শুক্রবার রাশিয়ার কোম্পানিটির সঙ্গে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও পাবনার রূপপুর প্রকল্পের ‘পারমাণবিক নিরাপত্তা ও ভৌত সুরক্ষাব্যবস্থা সেল’র (এনএসপিসি) মধ্যে এ চুক্তিটি হয়। মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, এসএসপিসি ও রাশিয়ার এলরনের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চুক্তি স্বাক্ষর হয়। উক্ত স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবসহ সংশ্লিষ্টরা অংশ নেন।

রাশিয়ার কোম্পানি জেএসসি এলরন ২ হাজার ৪০০ কোটি টাকা ব্যয়ে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভৌত সুরক্ষাব্যবস্থা নির্মাণ করে দেবে। চুক্তি অনুযায়ী ২০২৪ সালের মার্চ মাসের মধ্যে পিপিএস নির্মাণকাজ শেষ করতে হবে।

পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পটি এখন পর্যন্ত দেশের সবচেয়ে বড় প্রকল্প। এর ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ১৩ হাজার কোটি টাকা। এর নির্মাণ ব্যয়ের জন্য ৯০ শতাংশ অর্থ রাশিয়ার কাছ থেকে ঋণ হিসেবে নিচ্ছে বাংলাদেশ। বাকিটা বাংলাদেশ সরকার থেকে দেয়া হবে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানিয়েছে, পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভৌত সুরক্ষাব্যবস্থার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের দায়িত্ব সরকার বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে দিয়েছে। বাংলাদেশ ও রাশিয়ার দুই দেশের সরকারের মধ্যকার চুক্তি অনুযায়ী রাশিয়ার কোম্পানি এলরন এ নিরাপত্তা প্রকল্প নির্মাণের ঠিকাদার হিসেবে কাজ করবে।

সূত্র জানায়, চুক্তি হওয়া ২ হাজার ৪০০ কোটি টাকার পিপিএস প্রকল্পটি মোট ব্যয়ের মধ্যে নেই। ফলে রূপপুর প্রকল্পের ব্যয় আরও বাড়বে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here