লালমোহনে মসজিদের দানবাক্সসহ ২ ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে দূধর্ষ চুরি

0
32

জাহিদুল ইসলাম দুলাল, লালমোহন 

ভোলার লালমোহনের রমাগঞ্জে ইউনিয়নের পূর্বচরউমেদ গ্রামের আজাহার রোডের পূর্বমাথা মসজিদে মদিনার দানবাক্স, মনির স্টোর ও মোয়াজ্জিনের চা দোকানে দূধর্ষ চুরির অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১৬ অক্টোবর শুক্রবার দিবাগত রাতে দোকান বন্ধ করে ব্যাবসায়ী মনির ও রবিউল হক মুয়াজ্জিন বাড়ীতে চলে যায় এবং প্রতিদিনের ন্যায় সকালে দোকান খুলতে এসে দেখে দোকানের তালা ও ঝাপের লক খোলা এবং ভিতরে সব এলোমেলো, ব্যাবসায়ী মনির বলেন আমার দোকানে ১ টি মোবাইল, নগদ ১০ হাজার টাকা সহ প্রায় ৫০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায় চোরের দল, এবং পাশ্ববর্তী মুয়াজ্জিনের চা দোকানের মালামাল ও নগদ টাকা এবং মসজিদে মদিনার দানবাক্স ভেঙ্গে টাকা নিয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, দীর্ঘ কয়েক বছরধরে ধলীগৌরনগরের চরমোল্লাজী গ্রামে একটি জুয়ার আসর চলে আসছে, ওই আসরে উপজেলার চতলা সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে জুয়ারীরা এসে একত্রিত হয়ে জুয়া খেলে থাকেন, চরমোল্লাজীর সূর্যমুখী খাল পার, মুজাম্মেল হক মেম্বার বাড়ীর পিছনে, হকু বেপারী বাড়ীর পিছনে ও বাগানে এ জুয়ার আসরটি চলে আসছে বলে জানান নাম প্রকাশে অনিচ্ছা সত্বে স্থানীয় একাধিক বাসিন্দা। স্থানীয় সূত্রে আরও জানাযায়, স্থানীয় ও ব্যাবসায়ীদের ধারনা জুয়ারীরা এ ঘটনা করতে পারেন আবার এসকল এলাকায় সন্ধা পর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বখাটে যুবকদের আনাগোনা লক্ষ করা যায়। গত কিছুদিন আগে রাতের আধাঁরে আগুন লাগিয়ে আজাহার রোডের পশ্চিম মাথার মাসুদের মুদি দোকানে পুড়ানোর চেষ্টা করলে সে থানায় অভিযোগ করেছেন বলে জানাযায় এবং গত সাপ্তায় উপজেলার রায়চাঁদ বাজার ব্রিজ সংলগ্ন নুরনবীর ইলেকট্রনিক ও মোবাইল সার্ভিসিং দোকান চুরি হওয়ার ঘটনা ঘটে সে দোকান থেকে একটি কম্পিউটার, মোবাইলের সার্ভিসিং যন্ত্রাংশ নিয়ে যায় চোরচক্র । অনেকে মনে করেন উপজেলা সদর থেকে দূূরত্ব একটু বেশি হওয়ায় প্রশাসনের নজরে তেমন আসেনা বিভিন্ন অপরাধগুলো, স্থানীয় সচেতনমহল ও ব্যাবসায়ীদের দাবী প্রশাসন যেন জুয়ারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেন। এ ব্যাপারে লালমোহন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মাকসুদুর রহমান মুরাদ বলেন, এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নিব।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here