অবশেষে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেল ভারতের তৈরি কোভ্যাক্সিন

0
30

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্ক: 

অবশেষে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেয়েছে ভারতের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন কোভ্যাক্সিন। আবেদনের প্রায় সাত মাস পর বুধবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন কোভ্যাক্সিন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা স্থানীয় ফার্মসিউটিক্যাল কোম্পানি ভারত-বায়োটেকের তৈরি এই ভ্যাকসিনকে তালিকাভুক্ত করার পাশাপাশি জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদনও দিয়েছে। এর ফলে এই ভ্যাকসিন গৃহীতাদের বহির্বিশ্বে আর কোয়ারেন্টাইন কিংবা অন্য কোনো বিধিনিষেধের মুখোমুখি হতে হবে না।

এ ব্যাপারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টুইটারে এক বিবৃতিতে জানায়, ভারত বায়োটেকের তৈরি ভ্যাকসিন কোভ্যাক্সিন জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দিয়েছে ডব্লিউএইচও। গত এপ্রিলে কোভ্যাক্সিনের জরুরি ব্যবহারের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন চেয়ে অবেদন করেছিল ভারত বায়োটেক। তবে জুলাইয়ে এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করে ভারত বায়োটেক। দীর্ঘ পরীক্ষানিরীক্ষা শেষে প্রায় সাত মাস পর ভ্যাকসিনটি ব্যবহারের অনুমোদন দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন ছাড়াই কোভ্যাক্সিন ভারতে ব্যাপক প্রয়োগ করা হয়েছে। ভারতের ১৪ কোটি ১২ লাখ মানুষ এই ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন না পাওয়ায় ভ্যাকসিন গ্রহীতাদের মধ্যে উদ্বেগ ছিল।

ভারত বায়োটেকের দাবি, কোভ্যাক্সিন করোনাভাইরাসের উপসর্গের বিরুদ্ধে ৭৭.৮ শতাংশ কার্যকর। নতুন ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে এ ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ৬৫.২ শতাংশ বলে দাবি করেছে ভারত বায়োটেক। তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের সফলভাবে সমাপ্তির পরই এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয় বলেও দাবি ভারত বায়োটেকের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here