কলাপাড়ায় প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রে ছাগল চিকিৎসায় ৩শ’ টাকা নিলেন উপ সহকারী কর্মকর্তা শুভাশীষ মজুমদার

0
78

এস এম আলমগীর হোসেন, কলাপাড়া

কলাপাড়ায় ছাগল চিকিৎসা করে উপজেলা প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রের উপ সহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (প্রাণি স্বাস্থ্য) শুভাশীষ মজুমদারের বিরুদ্ধে ৩শ’ টাকা উৎকোচ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।
সোমবার (২৯ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১ টায় পৌর শহরের নাচনাপাড়া এলাকার আল আমিন মল্লিকের স্ত্রী ফাতেমা বেগমন তার পালিত একটি ছাগল নিয়ে চিকিৎসার জন্য কলাপাড়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রে নিয়ে যায়।
ওই কেন্দ্রের উপ সহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (প্রাণি স্বাস্থ্য) শুভাশীষ মজুমদার ছাগলের চোখের সমস্যার জন্য কেন্দ্র থেকে সরকারি ঔষধ দেয়। ঔষধ দিয়েই ফাতেমা বেগমের কাছ থেকে ওষুধ বাবদ নয়ছয় বুঝিয়ে নগদ ৩শ’ টাকা নেয়। ইতিপূর্বে করোনাকালীন কঠোর লকডাউন সময় শুভাশীষ মজুমদার পশু চিকিৎসার নামে একাধিকবার উৎকোচ নেয়। এ নিয়ে কর্মকর্তারা তাকে সতর্ক করলেও থামেনি তার অনিয়ম-দুর্নীতি। এতে আরও বেপরোয়া উঠেছে ওই কর্মকর্তা।
ফাতেমা বেগম টাকা নেয়ার কথা স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে কান্না ভেঁজা কন্ঠে জানান, আমরা গরীব মানুষ, আমার পালিত ছাগলটি নিয়ে ওই কেন্দ্রে আসলে ছাগলটি দেখে ঔষধপত্র লিখে দেয়। সে অনৈতিক ভাবে ৩শ’ টাকা হাতিয়ে নেয়। অনেক কষ্ট করে টাকা ধার এনে দিয়েছি।
 এ বিষয়ে অভিযুক্ত উপজেলা প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রের উপ সহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (প্রাণি স্বাস্থ্য) শুভাশীষ মজুমদার টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, কিছু ওষুধ বাইরে থেকে কিনে এনে তাদের কাছে বিক্রি করে থাকি, এতে ভুক্তভোগীরা উপকৃত হয়, এটা কি আমার অপরাধ?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here