গলাচিপায় অসহায়, দুস্থ ও দরিদ্র মানুষের সাহায্যের জন্য এগিয়ে এলো তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী সিনহা

0
24

আব্দুল আলিম খান, পটুয়াখালী

হোক কম টাকা তবুও দান! করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মোকাবেলায় অসহায়, দুস্থ ও দরিদ্র মানুষের সাহায্যের জন্য গলাচিপা উপজেলা তহবিলে নিজের ব্যাংকে জমানো ৩১৪৫/-টাকা জমা দিয়েছে তৃতীয় শ্রেনির ছাত্রী হাসিবুন নাহার সিনহা। সোমবার ১২টায় গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ মোঃ রফিকুল ইসলামের কার্যালয়ে ব্যাংকটি তাঁর হাতে তুলে দেয়। ব্যাংকটি হস্তান্তরের সময় সিনহার বাবা উপস্থিত ছিলেন। জানা গেছে, গলাচিপা উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত বাংলাদেশ তুরস্ক ফ্রেন্ডশীপ স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী হাসিবুন নাহার সিনহা। সিনহা গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজের সমাজবিজ্ঞানের প্রভাষক ও সাংবাদিক মোঃ হারুন অর রশিদ ও রতনদী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মোসাঃ লুৎফুন নাহার এর মেয়ে।

তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী সিনহা জানায়, লকডাউনের সময় বাসায় পড়াশোনা করার ফাঁকে ফাঁকে টেলিভিশন দেখে সময় কাটাই। টিভিতে খবরের মাধ্যমে এবং আমার আশে পাশে গরীব মানুষেরা অসহায়ভাবে দিন যাপন করতে দেখি। তারা অনেকে অর্ধাহারেও দিন কাটাচ্ছে। তাই পায়ের নূপুর তৈরির জন্য প্রথম শ্রেণি থেকে জমানো ৩১৪৫ টাকা অসহায় মানুষদের জন্য দান করলাম। প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরে আমি খুব খুশি। সে টাকা কেন জমা দিয়েছে এই প্রশ্নের জবাবে বলল, এভাবে টিফিনের টাকা জমিয়ে পরে আমি নূপুর বানিয়ে নিতে পারব। কিন্তু এখন অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত।

বাংলাদেশ তুরস্ক ফ্রেন্ডশীপ স্কুলের উপাধাক্ষ্য মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান- আমাদের বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির একজন ছাত্রীর এমন মহতি উদ্যোগে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সত্যিই গর্বিত ও আনন্দিত।

এ ব্যাপারে গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ মোঃ রফিকুল ইসলাম এই কোমলমতি শিশুর মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, অসহায়, দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী সিনহা অনন্য নজির স্থাপন করেছে। এই শিশুটির কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। এটি দেখে সমাজের সকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসা উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here