পটুয়াখালীতে ভিজিএফের চাল চাইতে গিয়ে চেয়ারম্যানের মার খেল জেলেরা

0
59

আব্দুল আলিম খান, পটুয়াখালী

করোনা পরিস্থিতিতে জেলেরা ভিজিএফের চাল চাওয়ায় তাদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় মানববন্ধন করেছে ওই এলাকার শতাধিক জেলে। বৃহস্পতিবার দুর্গম চরাঞ্চল থেকে ট্রলারযোগে পটুয়াখালী জেলা শহরের পৌঁছে প্রথমে জেলা প্রশাসকের বাসভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি এবং পরে ডিসি কার্যালয়ের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে তারা। এ সময় জেলেরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিচারের দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

ভুক্তভোগী জেলেরা অভিযোগ করে বলেন, জেলে তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও ভিজিএফের চাল দেয়া হচ্ছে না প্রকৃত জেলেদের। টাকার বিনিময়ে অন্য পেশার লোকজন জেলেদের ভিজিএফ কার্ড হাতিয়ে নিয়ে চাল পাচ্ছে।

করোনার এই পরিস্থিতিতে চেয়ারম্যানের কাছে সহায়তা চাইতে গেলে রাঙ্গাবালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুজ্জামান খান মামুন ও ইউপি সদস্য রহিম চৌকিদার, নারী কাউন্সিলর নারগিস পারভিন কল্পনা তাদের ক্যাডার বাহিনী দিয়ে জেলেদের মারধরসহ লাঞ্চিত করেন।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত সাইদুজ্জামান খান মামুন বলেন, জেলে কার্ড সীমিত। এ ছাড়া পর্যাপ্ত সহায়তা না থাকায় জেলেদের প্রত্যাশা মেটানো যাচ্ছে না। জেলেদের মারধরের বিষয়টি সত্য নয়। স্থানীয় রাজনৈতিক একটি মহল জেলেদের উৎসাহিত করে আমার বিরুদ্ধে প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছে।

এ ছাড়াও এ সদর ইউনিয়নে কার্ডধারী জেলে ২৭শ’। আর বরাদ্দ পাওয়া গেছে মাত্র ১৬শ’ জেলের। বঞ্চিত জেলেদের মাঝে তো ক্ষোভ থাকতেই পারে।

এ প্রসঙ্গে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, জেলেদের ভিজিএফ কার্ড নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ পেয়েছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তদন্তে অনিয়ম প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here