লালমোহনে জোরপূর্বক ঘর দখল করতে ১০ জনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

0
59

নুরুল আমিন, লালমোহন

ভোলা লালমোহনে প্রভাবশালী প্রতিপক্ষ জোরপূর্বক ঘর দখল করতে ১০ জনকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত ও কুপিয়ে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার চরভুতা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের তালপাতা বাজারে ৫ জানুয়ারি সকাল অনুমান ১০.৪০ ঘটিকায় এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, তালপাতা বাজারে শফি উল্যাহ ও ইউনুস দীর্ঘদিন ধরে তাদের ভোগদখলে বিদ্যমান থাকা নিজ ভূমিতে দোকান ঘর নির্মাণ করে। উক্ত দোকানঘর দখল করার জন্য একই বাড়ির সাইফুল, বাবর, করিম, দুলালরা পায়তারা দিতে থাকে। বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি ভয়ভীতি দেখিয়ে হয়রানি করতে থাকে। উভয়ের মধ্যে মামলা মকদ্দমা ও বিরোধ চলে আসছে। এক পর্যায়ে ঘটনার দিন ৫ জানুয়ারি শফি উল্যাহ তার দোকানে সার্টার লাগাতে গেলে সকাল অনুমান ১০.৪০ ঘটিকার সময় প্রতিপক্ষ সাইফুল, বাবর, করিম, দুলাল, কামরুল, আলী একাব্বর, নাছির, আবু তাহের, ইয়াসিন, রাশেদা, ফাতেমা, কুলসুম, জান্নাত, মোসলে উদ্দিন,  নুর ইসলাম, ফরিদ ও মাসুম সহ একটি সংঘবদ্ধ গ্রুপ দা, ছেনি, রামদা, লোহার রড ও লাঠিসোঁটা নিয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে অতর্কিত হামলা করে শফি উল্যাহকে এলোপাতাড়ি মারপিট বেদম করে। এসময় শফি উল্যাহ উদ্ধার করতে এগিয়ে এলে ইউনুস, তাসলিমা, সালমা, মাকসুদ, রোশনারা, নুর নাহার, কোহিনূর, তানবির ও আঃ রবকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম করে। আহতদের লালমোহন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গুরুতর জখম কোহিনূর, শফি উল্যাহ ও তানবিরকে ভোলা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। মারপিটের সময় হামলাকারীরা মহিলাদের টানাহেঁচড়া করে শ্লীলতাহানি করে এবং নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল সেট ও মালামাল নিয়ে যায়। মাকসুদ বাদী হয়ে লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করে। আসামি ইয়াসিন, নুর ইসলাম, ফরিদকে গ্রেফতার করে ভোলা কোর্টে প্রেরণ করে লালমোহন থানা পুলিশ।  এর আগেও দুইবার অভিযুক্ত ব্যক্তিরা মাকসুদ, জামাল ও সুমনকে পিটিয়ে হাজীর হাট তালপাতা বাজারে পিটিয়ে আহত করে। আদালতে তাদের বিরুদ্ধে এসব ঘটনায় দুটি মামলা রয়েছে। এসব ঘটনায় আহতরা ন্যায় বিচার দাবী করেন।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here