কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিল প্রার্থীরা কে কত ভোট পেলেন

0
8

রিমন সিকদার, কলাপাড়া

গত ১৪ ফেব্রুয়ারী রবিবার অনুষ্ঠিত কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থীগণ কে কত ভোট পেলেন।
কলাপাড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আঃ রশিদ স্বাক্ষরিত ভোটের ফলাফলে দেখা যায়, কলাপাড়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ৫ জন। এ ওয়ার্ডে মোঃ তারেকুজ্জামান তারেক (উট পাখি) প্রতিকে ৭৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এ,কে,এম শামসুল আলম (ডালিম) প্রতিকে ৩৪৩ ভোট, মোঃ গাউস মাতুব্বর (পান্জাবী প্রতিকে) ১৮৮ ভোট, ফজলুল হক (পানির বোতল) প্রতিকে-১০৮ ভোট, মোঃ রফিকুল ইসলাম (টেবিল ল্যাম্প) প্রতিকে ৯৪ ভোট পান। ১নং ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা-১৪৯৪। বাতিল কৃত ভোট-২।
২নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ৫ জন। মোঃ হুমায়ুন কবির (টেবিল ল্যাম্প) প্রতিকে ৫৫০ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এস এম মাঈনুল ইসলাম ১৪৪ ভোট, নুরুল আমিন (পানির বোতল) প্রতিকে ৮০ভোট, মোঃ ফরিদ উদ্দিন বিপু (ডালিম) প্রতিকে ৩৯ভোট, মোঃ জাকির হোসেন ইমন (উট পাখি) ৩০ ভোট পান। ২নং ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা ৮৪৩ বাতিল কৃত।
৩নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে জাকি হোসেন জুকু (ডালিম) প্রতিকে ৬২৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ আঃ রাজ্জাক হাওলাদার ২২৭ভোট। এই ওয়ার্ডে২জন  কাউন্সিলর প্রার্থী ছিল। বৈধ ভোটের সংখ্যা ৮৫৩, বাতিল নাই।
৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন তিনজন। মোঃ খালিদ খান (উটপাখি) প্রতিকে ৫৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃনাসির উদ্দিন (ডালিম) প্রতিকে ১৪২ ভোট, মোঃ ইমরান বিশ্বাস (টেবিল ল্যাম্প) প্রতিকে ১২৪ ভোট পেয়েছেন। এই ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা-৮০২। বাতিলকৃত ভোট-০১।
৫নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ৩জন। শেখর চন্দ্র দাস (উটপাখি) প্রতিকে ৫৩০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নিখিল চন্দ্র হাওলাদার (পানির বোতল) প্রতিকে ৩৯২ ভোট, উত্তম দাস (ডালিম) প্রতিকে ৪৮ ভোট পান। এই ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা-৯৭০। বাতিল কৃত নাই।
৬নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ৬জন। মোঃ শাখাওয়াত হোসেন (পান্জাবী) প্রতিকে ৩৬২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী দেবাশীষ মুখার্জী (উট পাখি) প্রতিকে ২১০ ভোট, মোঃ শফিকুর রহমান বিশ্বাস (টেবিল ল্যাম্প) প্রতিকে-১২০ ভোট, নিগার সুলতানা মিলি (ডালিম) প্রতিকে ১১৬ ভোট, মোঃহিরন (ব্লাক বোর্ড) প্রতিকে ৫৬ ভোট, রাসেল মোল্লা (পানির বোতল) প্রতীকের ৪৪ ভোট পান। বৈধ ভোটের সংখ্যা-৯০৮ বাতিল কৃত ভোট-০৩।
৭নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ২জন। মাহাবুব আলম (পান্জাবী) প্রতিকে ৫৫১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। গাজী মশিউর রহমান (উট পাখি) প্রতিকে ২১২ ভোট পান। এই ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা-৭৬৩। বাতিল কৃত ভোট নাই।
৮নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ৮ জন। আঃ লতিফ খালাসী (পান্জাবী) প্রতিকে ২৮৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ মহিউদ্দিন (টেবিল ল্যাম্প)২১১ ভোট, মতিয়ার রহমান (ডালিম) প্রতিকে ১৩৯ ভোট, মোঃ দুলাল হাওলাদার (ব্রীজ) প্রতিকে ৮৯ ভোট, মোঃ কবিরুল ইসলাম (উট পাখি) প্রতিকে ৮১ ভোট, আশরাফুল আলম (ব্লাকবোর্ড) প্রতিকে ৬২ ভোট, মোঃ আল-আমীন (পানির বোতল) প্রতিকে ৬২ ভোট, মোঃ রাশেদ খান (গাজর) প্রতিকে ৩৫ ভোট পান। এই ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা ৯৬৬, বাতিল কৃত নাই।
৯নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ৩ জন। আবুল কালাম আজাদ (ডালিম) প্রতিক নিয়ে সর্বোচ্চ ৭৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ হাসান সিকদার (পান্জাবী) প্রতিকে ৪৫১ ভোট, মোঃ আল-আমীন সরদার (উট পাখি) প্রতিকে ৩৫১ভোট।এ ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা-১৫৮৪, বাতিল কৃত ভোট-১২।
সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ০১/০২/০৩ নং ওয়ার্ডে ৪ জন। মনোয়ারা বেগম (চশমা) প্রতিকে ১৬২২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হোসনেয়ারা বেগম (বলপেন) প্রতিকে ৭১১ ভোট, মোসাম্মাত লাইজু হেলেন লাকী (আনারস) প্রতিকে ৫৯১ ভোট, রাশেদা বেগম (জবা ফুল) প্রতিকে ২৫৫ ভোট পান। বৈধ ভোটের সংখ্যা-৩১৭৯। বাতিল কৃত ১৩ ভোট।
৪/৫/৬ নং ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন ২ জন। রোজিনা আকতার (জবাফুল) প্রতিকে ১৪৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শুভ্রা চক্রবর্তী (আনারস)প্রতিকে ১১৮০ ভোট পান।
৭/৮/৯নং ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন ৪ জন। উম্মে তামিমা বিথি (অটোরিক্সা) প্রতিকে ১৩৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোসাঃ রুবিনা আখতার (আনারস) প্রতিকে ১৩৪৭ ভোট। মোসাঃ রানী বেগম (চশমা) প্রতিকে ৪০০ ভোট। সবিতা রানী (জবা ফুল) প্রতিকে ১৭৫ ভোট পান। এই তিনটি ওয়ার্ডে বৈধ ভোটের সংখ্যা-৩৩০৪। বাতিল কৃত ভোট-২০।
SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here