1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কলাপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কৃষক লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া ৭১ এর পরাজিত শক্তি দেশকে অস্থিতিশীল করতে বিভিন্ন চক্রান্ত করে যাচ্ছে – এমপি শাওন পটুয়াখালীতে অধ্যক্ষের অপসারণ দাবিতে টায়ার জ্বালিয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ চরফ্যাশনের ছিদ্দিক এখন হাইকোর্টের আইনজীবী পিরোজপুরে গরম ডালে ঝলসে যাওয়া শিশুর মৃত্যু বাউফলে প্রবাসীর উপর আতর্কিত হামলা, কারাগারে ইউপি সদস্য উন্নয়ন ও গণতন্ত্রবিরোধী চক্রের সকল অপতৎপরতা ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করতে হবে- এমপি শাওন বাউফল জিও ব্যাগ ফেলে নদীর তীর সংরক্ষণ প্রকল্প উদ্ভোধন স্মরণে রিন্টুর বড় বোন এমপি সুলতানা নাদিরা শোক দিবসের এই দিনে  রিন্টুকে মনে পড়ে অভিভাবক ও শিক্ষকদের মধ্যে একটি কার্যকর যোগাযোগ নিশ্চিত করতে হবে-পুলিশ কমিশনার

হঠাৎ মোটরসাইকেল বন্ধ, বিপাকে দু’পাড়ের যাত্রীরা

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেট : সোমবার, ২৭ জুন, ২০২২
  • ২৪ বার পঠিত

পদ্মা সেতুতে প্রথম দিনেই দুর্ঘটনার কারণে হঠাৎ করেই সেতুর ওপর দিয়ে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। এমন সিদ্ধান্তে আমাদের মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ল।মনে কষ্ট নিয়ে কথাগুলো বলছিলেন মাদারীপুর থেকে ঢাকায় আসা রফিকুল ইসলাম মন্ডল।

বিয়ে করেছেন চার মাস হলো। নতুন বউকে নিয়ে ঢাকা আসা হয়নি। আগে থেকেই ভেবে রেখেছিলেন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হলে সেতুর ওপর দিয়ে বাইক চালিয়ে ঢাকায় আসবেন, বেড়াবেন আত্মীয়দের বাসায়। এসেও ছিলেন বউকে সঙ্গে নিয়ে বাইক চালিয়ে। কিন্তু, হঠাৎ করেই এমন সিদ্ধান্ত হওয়ায় বেশ কষ্টে পেয়েছেন তারা। এখন তাদের মাদারীপুর যেতে হবে ফেরিতে করে, অনেকটা পথ ঘুরে। এতে সময় লাগবে দেড় ঘণ্টা।মাওয়া টোল প্লাজায় মোটরসাইকেল গেলেই পুলিশ বাধা দিচ্ছে। হঠাৎ করে মোটরসাইকেল বন্ধ হওয়াতে বিপাকে পড়েছেন পদ্মার এপাড়-ওপাড়ের মানুষ। ভোর থেকেই বঙ্গবন্ধু মহাসড়কে মোটরসাইকেল চলাচলের সংখ্যা ছিলে হাতে গোনার মতো।

দোলাইপাড়, পোস্তগোলা টোলবক্স, শীতলক্ষা টোল বক্সের সামনে মোটরসাইকেল ছিল না বললেই চলে। আর যাদের দেখা মিলেছিল তারা স্থানীয় বাসিন্দা।অন্য সময় মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে পাঠাও মোটরসাইকেল দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেলেও আজ ছিল একেবারেই ফাঁকা। মোটরসাইকেল কম থাকায় পোস্তগোলা ব্রিজের ওপরে মাওয়া ও দূরপ্রান্তে যাওয়া বাসগুলোর সামনে ছিল প্রচুর ভিড়। কোনো বাস আসলেই হুমড়ি খেয়ে পড়ছে যাত্রীরা।

শরিয়তপুরগামী যাত্রী সোহেল বাংলানিউজকে বলেন, মোটরসাইকেল না থাকায় বাসওয়ালাদের সুবিধা হয়েছে। তারা ভাড়া বেশি নিচ্ছে। প্রতিবাদ করলে বাস চালক ও হেলপাররা খারাপ ব্যবহার করছে। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে মরবে বড় লোকের ছেলেরা, আর ভোগান্তিতে পড়বো আমরা সাধারণ জনগণ?

পোস্তগোলা ব্রিজের টোল আদাকারী মাসুদ বলেন, রোববার মোটরসাইকেলের  কারণে আমরা টোল নিতে হিমশিম খেয়েছি। আর আজকে ভোর থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত মনে হয় ৫০ টাও মোটরসাইকেল যাওয়া আসা করেনি।

সকাল থেকে ফেরি চলাচলও বন্ধ ছিল। তাই আরও ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে দু’পাড়ের মোটরসাইকেল আরোহীদের। পরে সকাল ১০ টার নাগাদ ফেরি চলাচল শুরু হলে ভোগান্তি কিছুটা কমে।

প্রসঙ্গত, রোববার (২৬ জুন) ভোর ছয়টা থেকে সব ধরনের যানবাহনের জন্য পদ্মা সেতু খুলে দেওয়া হয়। কিন্তু বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালানোর কারণে রাত ১০টায় মারাত্বক দুর্ঘটনায় দু’জন মারা যান। এর পরপরই সেতু বিভাগ পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে সব ধরনের মোটরসাইকেল (২৭ জুন থেকে) অনিদিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
%d bloggers like this: