1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কলাপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কৃষক লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া ৭১ এর পরাজিত শক্তি দেশকে অস্থিতিশীল করতে বিভিন্ন চক্রান্ত করে যাচ্ছে – এমপি শাওন পটুয়াখালীতে অধ্যক্ষের অপসারণ দাবিতে টায়ার জ্বালিয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ চরফ্যাশনের ছিদ্দিক এখন হাইকোর্টের আইনজীবী পিরোজপুরে গরম ডালে ঝলসে যাওয়া শিশুর মৃত্যু বাউফলে প্রবাসীর উপর আতর্কিত হামলা, কারাগারে ইউপি সদস্য উন্নয়ন ও গণতন্ত্রবিরোধী চক্রের সকল অপতৎপরতা ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করতে হবে- এমপি শাওন বাউফল জিও ব্যাগ ফেলে নদীর তীর সংরক্ষণ প্রকল্প উদ্ভোধন স্মরণে রিন্টুর বড় বোন এমপি সুলতানা নাদিরা শোক দিবসের এই দিনে  রিন্টুকে মনে পড়ে অভিভাবক ও শিক্ষকদের মধ্যে একটি কার্যকর যোগাযোগ নিশ্চিত করতে হবে-পুলিশ কমিশনার

পটুয়াখালীতে ছাত্রলীগের ভুয়া কমিটির বিজ্ঞপ্তি । ফেসবুকে ভাইরাল

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট : সোমবার, ১ আগস্ট, ২০২২
  • ১০ বার পঠিত

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্কঃ

দীর্ঘদিন নেতৃত্বশূন্য থাকা পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের একটি কমিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যেটি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্যাডে সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরে প্রকাশ করা হয়। পরে কেন্দ্র থেকে জানানো হয় ওই বিজ্ঞপ্তিটি ভুয়া।

তবে এর আগেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় প্রকাশিত ভুয়া বিজ্ঞপ্তিটি। অনেকে অভিনন্দন জানায় পদ প্রত্যাশিত নাম থাকা দুই নেতাকে।

গতকাল রোববার রাত ১১টার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সাবেক সহসভাপতি মেহেদী হাসান কোয়েলকে সভাপতি ও সাবেক সহসভাপতি সৈয়দ মো. বেলাল হোসেন পাবেলকে সাধারণ সম্পাদক করে ভুয়া বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশ করা হয়।

তবে কে বা কারা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্যাড এবং সভাপতি-সম্পাদকের স্বাক্ষর নকল করে এমন ভুয়া বিজ্ঞপ্তি ছড়িয়েছে বিষয়টি জানেন না কেউই।

এদিকে এ নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন কেন্দ্রীয় ও জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ থাকা ছাত্রলীগের দুই নেতাসহ অন্য নেতা-কর্মীরা এ ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে তদন্তের মাধ্যমে জড়িতদের খুঁজে বের করে শাস্তির দাবি জানান।

জেলা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সাবেক সহসভাপতি সৈয়দ বেলাল হোসেন পাবেল বলেন, ‘যারা এই মিথ্যা ভুয়া কমিটিটি ফেসবুকে ছাড়ছে তারা মূলত কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগকে প্রশ্নবিদ্ধ ও আমার সাথে ষড়যন্ত্র করছে। তাই যারা ষড়যন্ত্র করছে তাদেরকে চিহ্নিত করে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ রইল।’

জেলা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সাবেক সহসভাপতি আরিফ আলামিন বলেন, ‘যারা গুজব সৃষ্টি করছে তারা কেউ ছাত্রলীগের কর্মী হতে পারে না। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার এখনই সময়।’

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘ছাত্রলীগের অনেক সাংগঠনিক জেলাই দীর্ঘদিন থেকে মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি দিয়ে চলছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী খোঁজ খবর নিয়ে আমরা ধীরে ধীরে কমিটিগুলো করছি। এরই মধ্যে আমরা অনেক কমিটি করেছি।’

পটুয়াখালী জেলা কমিটি প্রসঙ্গে আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে পদ প্রত্যাশীদের জীবন বৃত্তান্ত গ্রহণ করেছি। এখানে যাতে কোনোভাবেই বিতর্কিত কেউ আসতে না পারে সে জন্য আমরা যাচাই বাছাই করছি। আশা করছি শোকের মাস আগস্টের শেষে আমরা কমিটি ঘোষণা করতে পারব।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া কমিটি প্রসঙ্গে ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, ‘ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ পটুয়াখালী জেলার কোনো কমিটি ঘোষণা করেনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে প্রেস রিলিজটি ছড়িয়ে পড়েছে তা অসৎ উদ্দেশ্যে কেউ প্রচার করেছে। আমরা এরই মধ্যে এর সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করতে কাজ করছি। যারা এ কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আমরা সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের জুলাই মাসে হাসান সিকদারকে সভাপতি ও ওমর ফারুক ইকবাল হোসেন ভূঁইয়াকে সাধারণ সম্পাদক করে তৎকালীন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেনের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এক বছরের জন্য পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

সে সময় এক বছরের জন্য কমিটি ঘোষণা করা হলেও গত ২০১৮ সালের ২৪ জুলাই কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে ২০১৯ সালের ২৯ জুন জেলা ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়।

পরবর্তীতে ২০২১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জেলা কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

এর পর পদ প্রত্যাশীদের কাছ থেকে সিভি নিলেও জেলা কমিটি আর আলোর মুখ দেখেনি। বর্তমানে কয়েক ডজন ছাত্রলীগ নেতা রয়েছেন যারা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কিংবা সাধারণ সম্পাদক হতে আগ্রহী। প্রতি মাসেই দুই থেকে তিনবার ঢাকা সফর করছেন এবং বিভিন্ন মাধ্যমে তদবির চালাচ্ছেন তাঁরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
%d bloggers like this: