1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৭:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শেখ হাসিনার উপহারের ঘর উপকূলে ঝড় তুফানে গৃহহীন মানুষের আশ্রয়ের ঠিকানা- এমপি শাওন লাহার হাট-ভেদুরিয়া আঞ্চলিক কমিটির সম্পাদক হেলাল উদ্দিন চরফ্যাশনে বিদ্রোহীর চাপে ডুবল নৌকা এসএসসির ফলাফলে লালমোহন হা-মীম সেরা লালমোহনে ১৪ বছর পালিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা হয়নি জোটনের দেশ ও জাতিকে আরো এগিয়ে নিয়ে হলে শেখ হাসিনার সরকারের বিকল্প নেই- এমপি শাওন বাউফলের উপজেলা স্ব্যাস্থ কমপ্লেক্সের জেনারেটর ১০ বছর ধরে নস্ট ভোলায় যুবকের নিখোঁজের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন তামাকমুক্ত বাংলাদেশ অর্জনে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া পাস হওয়া জরুরী: ড. হাছান মাহমুদ এমপি ভোলায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে নিখোঁজ যুবকের রক্তমাখা লাশ উদ্ধার

খেয়া নৌকাতেই যাত্রী পার করে চলছে জাকির মাঝির জীবিকা

জাহিদ দুলাল
  • প্রকাশিত : শনিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২২
  • ২৮ বার পঠিত

জাহিদ দুলাল, লালমোহন 

মো. জাকির মাঝি। বয়স প্রায় ষাট বছর। ভোলার লালমোহন উপজেলার লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী ফাতেমাবাদ এলাকার বেতুয়া খালে প্রতিদিন ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত একটি খেযা নৌকাতে করে যাত্রী পার করান তিনি। প্রায় ১০ বছর ধরে খেয়া নৌকা চালিয়ে লোকজনকে পার করে নিজের সংসার চালাচ্ছেন। লর্ডহাজিঞ্জ ইউনিয়নের ফাতেমাবাদসহ অন্যান্য এলাকার মানুষজন এ খাল পার হয়ে দ্রæত সময়ে পাশ^বর্তী চরফ্যাশন উপজেলায় যায় এবং প্রয়োজন সেরে ওই খেয়া দিয়ে আবার চলে আসেন। কম সময়ে চরফ্যাশন উপজেলাতে যেতে মাঝখানে বেতুয়া খাল হওয়ায় মানুষের ভরসা জাকির মাঝির খেয়া নৌকা। জাকির মাঝি ফাতেমাবাদ এলাকার বাসিন্দা।
জাকির মাঝি বলেন, আমার পূর্ব পুরুষরাও এই খালে নৌকা চালিয়েছেন। বর্তমানে এই বেতুয়া খালে আমিও নৌকায় করে মানুষ পারাপার করাচ্ছি। সন্তান থাকলেও, তারা বিয়ে করে থাকছে অন্যত্র। তাই নিজের সংসার চালাতে নৌকায় করে যাত্রী পারাপার করিয়ে জনপ্রতি ১০ টাকা করে নিচ্ছি। এতে দৈনিক মোট আয় হয় দুই থেকে তিনশত টাকা। যা দিয়েই আমার সংসার চালাচ্ছি।
নৌকায় করে বেতুয়া খাল পার হওয়া যাত্রী মাসুদ ও খালেক বলেন, সড়ক পথে গন্তব্যে পৌঁছাতে অতিরিক্ত অর্থ ও সময় ব্যয় হয়। এখান দিয়ে কাছে হওয়ায় নৌকায় করে পার হয়ে প্রয়োজনীয় কাজ সারছি। ১০ টাকা করে দিলেও এই খাল পাড়ি দিলে আমাদের গন্তব্যস্থল কাছে হয়।
লালমোহনের লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মিয়া জানান, বেতুয়া খালে আরো কয়েকজন নৌকায় করে যাত্রী পার করান। তাদেরকে বিভিন্ন সময় ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সরকারি নানা ধরনের সহায়তা প্রদান করা হয়। আমি ব্যক্তিগতভাবেও এসব মাঝিদেরকে বিভিন্ন সময় প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর