1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
বাউফলর মৎ পণ্য দেশের চাহিদা পুরন করে এখন বিদেশের বাজারে - দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ভাগ্যেন্নয়নে কাজ করছেন-এমপি শাওন লালমোহনে ইলিশের অভয়াশ্রম এলাকায় জনসচেতনতা সভা বোরহানউদ্দিন হাসপাতাল দালালদের খপ্পরে, প্রতারিত সাধারন রোগীরা ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক সন্ত্রাস উগ্রবাদ নিরসন প্রশিক্ষণ কর্মশালা বাউফলে সেতু আছে রাস্তা নেই ভোলার আলোচিত মাদক কারবারি বিয়ারসহ আটক মনপুরা কলাতলী ইউপি নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় চেয়ারম্যান পদে আলাউদ্দিন হাওলাদার নির্বাচিত আজিজিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা পদক ও সাংস্কৃতিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত এমপি শাওনকে লালমোহন পৌরসভার পক্ষ থেকে নাগরিক সংবর্ধনা চরফ্যাশনে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় শিক্ষকসহ ১৭ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার

বাউফলর মৎ পণ্য দেশের চাহিদা পুরন করে এখন বিদেশের বাজারে

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪ ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : শনিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২২
  • ১২৪ বার পঠিত
Spread the love

তৌহিদ হোসেন উজ্জ্বল , বাউফল 

বাউফলের ঐতিহ্যবাহী মাটির তৈরি পণ্য সামগ্রী এখন দেশের গন্ডি পেরিয়ে বিদেশের বাজার দখল করেছে। বিগত কয়েক বছর ধরে ইউরোপ, আমেরিকার ও অষ্ট্রলিয়ার বেশ কয়কটি বাজারে সরবরাহ করা হচ্ছে মাটির তৈরি বিভিন্ন পণ্য।
বাউফল উপজেলার মদনপুরা ও কনকদিয়া ইউনিয়নের পালপাড়া পরিদর্শণকাল জানা যায়, করোনা মহামারীর ধাক্কা সামলে বর্তমান মহা ব্যস্ত সময় পার করছন মৎ শিল্পর সঙ্গে জড়িত শ্রমিকরা। মৎপল্লী ঘুরে চোখ পড়েছে মাটির তৈরী বাহারি সব জিনিসপত্র এবং শোনা যাচ্ছে নানা রং-বেরংয়ের খেলনার টুং টাং শব্দ। প্রতিযাগিতা চলছ দ্রত সরবরাহের। বাহারি ডিজাইনর পণ্য ফিনিশিং শেষে চলছে প্যাকজিং। কাগুজিরপুল ব্রিজর ঢালে দাড়িয়ে থাকা গাড়িত লোড করা হচ্ছে মাটির তৈরি পণ্য ভর্তি ঝুড়ি।
বাজার ধরত গাড়িগুলা যাবে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায়। বাউফল আধুনিক মাটির পণ্য তৈরীর দিকপাল, একাধিক পুরস্কার প্রাপ্ত বিশ্বশ্বর পাল জানান, এখানকার মাটির পণ্য দেশ এবং বিদেশে নদিত। এ সকল পণ্য বিদেশে রপ্তানির জন্য আড়ং, কার দি জুট ওয়ার্কস, ঢাকা হ্যান্ডিক্রাফট সহ বেশ কয়কটি প্রতিষ্ঠান কাজ করছে। তিনি বলন, প্লাষ্টিক পণ্যর প্রভাব বংশানুক্রমিকভাব চলে আসা এই পেশা যখন বিলুপ্ত হওয়ার পথ। তখন আমরা আধুনিক ডিজাইনর পণ্য তরির জন্য কৌশল অবলম্বন করি।
আশির দশক ঢাকায় কয়কটি প্রতিষ্ঠানকে বাউফলর মাটির পণ্যর মান দেখানা হয়। ওই সময় আড়ং কর্তপক্ষর সঙ্গ কথা হয়। তারা বাউফলে তৈরী মাটির পণ্য দেখে মুগ্ধ হন। সেই থেকেই তাদর সহযাগিতায় এ শিল্প আধুনিকতার ছোঁয়া লাগতে শুরু করে। এরপর ঢাকা হ্যান্ডিক্রাফট নামক প্রতিষ্ঠানর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলে এরপর থেকেই ঢাকায় বাউফল তৈরী নানা ধরণের মাটির পণ্য সরবরাহ শুরু হয়।
তিনি বলেন, আমরা কঠোর পরিশ্রম ও মনানশীলতা দিয়ে বাউফলের মাটির পণ্যকে বিশ্বমানের আধুনিক পণ্য রপ দিতে সক্ষম হয়েছি এবং এই শিল্পর সঙ্গে জড়িতরা গর্বের অংশীদার হয়েছেন। বর্তমান বাউফলর মাটির তৈরী নানা পণ্য এশিয়া মহাদেশের সীমানা ছাড়িয় ইউরাপ, আমরিকা ও অষ্ট্রলিয়া মহাদেশে ছড়িয়ে পড়ছে।
বাউফল পৌর সভার এক নম্বর ওয়ার্ডর কাউন্সিলর ও বাউফলর একটি মৎ শিল্প কারখানার মালিক শংকর পাল জানান, প্রতিবছরই পণ্যর ডিজাইন পরির্বতন আসে। ঢাকার বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান নতুন ডিজাইন করে তাদর চাহিদাপত্র দেন। সে অনুযায়ি নতুন নতুন ডিজাইনের পণ্য তৈরী হয়। তিনি বলন, বিগত বছরর তুলনায় এ বছর সবগুলা মাটির পণ্যই নতুনত্ব এসেছে।
অপর মৎ শিল্পী শ্যামল পাল জানান, এ বছর ডিনার সেট থাকছে প্লেট, গ্লাস, মগ, কারিবল, জগ, লবনদানি, সানকি (বাসন), কাপপিরিচ ও তরকারির বাটি। এ ছাড়াও নতুন ডিজাইন তৈরী করা হয়েছে স্যুপ সেট। অন্যান্য পণ্যর মধ্য নতুন ডিজাইনর কয়েলদানি, মোমদানি, ঘটি, ফুলদানি ও নানা ধরণর খেলনা ক্রতাদের আলাদা ভাবে আকষ্ট করবে। ডিনার সেট ছাড়াও আলাদা বিক্রির জন্য তৈরী করা হয়েছে মাটির প্লেট, গ্লাস, জগ, মগ, ইত্যাদি।
রাসায়নিক কোন পদার্থের ছাঁয়া ছাড়াই তৈরী করা হয়েছে মাটির ওইসব পণ্য। তিনি বলেন, পণ্যর গায়ে রঙ করা হয় পাহাড়ি গাছর রস দিয়ে। মৎ শিল্প কারখানার মালিক শিল্পী বরুন পাল বলন, এক সময় বাউফলর পাল পাড়ায় জালর কাঠি, পুতুল, কলস, বাচাদর খেলনা, রসের হাঁড়িসহ গ্রামবাংলার ঘর ব্যবহার্য নানা ধরণর মাটির সামগ্রী তৈরী হত। ক্রমানয় প্লাষ্টিক সামগ্রীর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে একই কাঁচামাল তৈরি হতে থাকে মোমদানি, অ্যাষ্ট্র, ফুলদানি এবং পায়ের গাড়ালি ঘষানি (ঝামা),ডিনার সেট, ফুলদানি, কয়েল দানি, টি সেট, হুক্কা, ভর্তার বাটি, ল্যাম্পসেট, মাটির মালা, ব্রসলট ও কানের দুলসহ আর্কষনীয় মাটির শোপিচ। তিনি জানান, আধুনিক ডিজাইনর এসব মাটির পণ্য তৈরি করে অনক পরিবারর আর্থিক স্বছলতা এসেছে। #

Please Share This Post in Your Social Media

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!