1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
হাটহাজারী মাদরাসার প্রধান মুফতি ও প্রবীণ মুহাদ্দিসের ইন্তেকাল - দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪
বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৩:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
লালমোহনে এক সঙ্গে ‘এক মিনিট ধরে ঘন্টাধ্বনী’ আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান সৈয়দ নাসির উদ্দিন লালমোহনে ৪ তলা ভিত বিশিষ্ট একতলা একাডেমিক ভবন উদ্বোধন করলেন এমপি শাওন মনপুরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যন্ত্রপাতি ও জনবলের সংকটে স্বাস্থ্যসেবা . ৬৭পদ দীর্ঘদিন শূন্য লালমোহনে পানিতে ডুবে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু মানুষের বহুমুখী উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক গৃহীত ও বাস্তবায়ন হয়েছে-এমপি শাওন পটুয়াখালীতে ৪০০ বোতল ফেনসিডিলসহ ও ৬০ হাজার টাকা উদ্ধার আটক-০২ লালমোহনে বাদী হয়ে অভিযোগ করতে এসে আসামী হয়ে কারাগারে ঠিকাদার শাহাবুদ্দিন বাংলাদেশের যত উন্নয়ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই হয়েছে-এমপি শাওন তরুণ সমাজকে মাদক থেকে রক্ষায় খেলাধুলার বিকল্প নেই – এমপি শাওন

হাটহাজারী মাদরাসার প্রধান মুফতি ও প্রবীণ মুহাদ্দিসের ইন্তেকাল

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্ক:
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ৩১ মার্চ, ২০২৩
  • ৩৭ বার পঠিত

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্কঃ

চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদারাসার প্রধান মুফতি ও প্রবীণ মুহাদ্দিস আল্লামা নূর আহমদ ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহ ওয়া ইন্না ইলাইহি রজিউন। আজ শুক্রবার (৩১ মার্চ) রাত সাড়ে তিনটার দিকে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

জানা যায়, আজ শুক্রবার আসরের পর মাদরাসার মাঠে মরহুমের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে গত সোমবার (২৭ মার্চ) দিবাগত রাতে হাটহাজারী মাদরাসার দীর্ঘ ৩৫ বছরের প্রবীণ শিক্ষক মাওলানা মুমতাযুল করীম (বাবা হুজুর) রাজধানীতে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। পরদিন মঙ্গলবার মাদরাসার মাঠে তাঁর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

মুফতি নূর আহমদ দীর্ঘকাল ধরে হাটহাজারী মাদরাসার আবাসন বিষয়ক প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। শিক্ষাবিভাগীয় প্রধান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি। তিনি ছিলেন আল্লামা মুফতি ফয়জুল্লাহ (রহ.)-এর বিশেষ ছাত্র ও সর্বশেষ খলিফা। হাটহাজারী মাদরাসার সাবেক পরিচালক আল্লামা শাহ হামেদ (রহ.)-এর বড় জামাতা ছিলেন তিনি।

মুফতি নূর আহমদ (রহ.) ১৯৩৮ সালে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬০ সালে হাটহাজারী মাদরাসা থেকে দাওরায়ে হাদীস (মাস্টার্স) সম্পন্ন করেন। এরপর প্রায় আড়াই বছর তৎকালীন মুফতিয়ে আজম মুফতি ফয়যুল্লাহ (রহ.)-এর সান্নিধ্যে ফিকাহ ও ফতোয়া বিষয়ে গভীর পাণ্ডিত্ব অর্জন করেন। মুফতি ফয়যুল্লাহ (রহ.) হাটহাজারী মাদরাসার তৎকালীন পরিচালক আল্লামা শাহ আবদুল ওয়াহ্হাব (রহ.)-এর কাছে একটি চিঠি লিখে পাঠালে মুফতি নূর আহমদকে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। তবে দুই বছর পর তিনি মাদরাসা থেকে অব্যাহতি নেন। এরপর ১৯৬৪ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত তিনি হাটহাজারীর বাথুয়া মাদরাসায় একাধারে ২০ বছর শিক্ষকতা করেন। এ সময়ে তিনি হাটহাজারী মাদরাসার সাবেক পরিচালক মাওলানা কারি হাফেজ হামেদ (রহ.)-এর মেয়েকে বিয়ে করেন। ১৯৮২ সালে আল্লামা শাহ আবদুল ওয়াহ্হাব (রহ.)-এর ইন্তিকালের পর মাওলানা কারি হাফেজ হামেদ (রহ.) হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পান। এরপর ১৯৮৪ সাল থেকে মাওলানা মুফতি নূর আহমদ (রহ) হাটহাজারী মাদরাসায় পুনরায় শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পান এবং দীর্ঘ দীর্ঘ ৩৮ বছর পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!