1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
লালমোহনে জেলেদের চাল বিতরণে ব্যাপক অনিয়ম - দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় সাপের কামড়ে নারীর মৃত্যু বাউফলে ছাগল চোর আটক, এলাকাবাসীর গনধোলাই ‘লঞ্চে সন্তান প্রসব, মা-শিশুর আজীবন ভাড়া ফ্রি’ ভোলা জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ মাহবুব-উল-আলম- শ্রেষ্ঠ থানা লালমোহন লালমোহনে অটোরিকশার চাকায় পৃষ্ট হয়ে ৫ বছরের শিশু নিহত মনপুরায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ঘূর্ণীঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে এমপি জ্যাকবের নগদ অর্থ বিতরন বাউফল উপজেলা প্রসাশনের আয়োজনে উপজেলা চেয়ারম্যানদের বরন অনুষ্ঠান বোরহানউদ্দিনে ভিক্ষুককে পিটিয়ে জখম, হামলাকারী যুবক আটক কলাপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্থ্য ৩৬০০ পরিবার পেলো জাপানের খাদ্য সহায়তা

লালমোহনে জেলেদের চাল বিতরণে ব্যাপক অনিয়ম

জাহিদ দুলাল
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৭৫ বার পঠিত
Spread the love

জাহিদ দুলাল, লালমোহন

ভোলার লালমোহন উপজেলার রমাগঞ্জ  ইউনিয়নে জেলেদের মাঝে জেলে পুনর্বাসনের চাল বিতরণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। জনপ্রতি ৪০ কেজি চাল দেওয়ার কথা থাকলেও সেখানে ২৯ থেকে ৩২ কেজি করে বিতরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন জেলেরা। সোমবার ও মঙ্গলবার (১০ও ১১ এপ্রিল)২দিন সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এ চাল বিতরণ করা হয়। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ট্যাগ অফিসার ছাড়াই এই চাল বিতরণ করা হচ্ছে।
উপজেলা মৎস্য কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জাটকা ইলিশ শিকার বন্ধে দেশের সব উপকূলীয় অঞ্চল এলাকার নদীতে পহেলা মার্চ থেকে এপ্রিলের শেষ পর্যন্ত সকল ধরনের জাল দিয়ে মাছ ধরা, পরিবহণ করা ও বিক্রির ওপর সরকারের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তবে এই নিষেধাজ্ঞা ও জাটকা শিকার বন্ধকালীন সময় সরকারি খাদ্য সহায়তা হিসাবে প্রতি মাসে জেলেপ্রতি ৪০ কেজি করে জেলে পুনর্বাসনের চাল বিতরণ করা হয়।
সে অনুসারে রামগঞ্জ ইউনিয়নে ৪১৮ জন জেলের মাঝে ৩৩.৪৪০ টন খাদ্য সহায়তার চাল বিতরণ করা হয়। জেলেরা অভিযোগ করেছেন, জেলে প্রতি ৪০ কেজির স্থলে ২৯ থেকে ৩২ কেজি করে চাল দেওয়া হয়েছে। তবে চেয়ারম্যানের দাবি, প্রত্যেক জেলেকে নিয়ম মেনেই তারা চাল দিয়েছেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সুবিধাভুগী জেলেরা অভিযোগ করেন, তাদেরকে ৪০ কেজি চাল না দিয়ে ২৯ থেকে ৩২ কেজি চাল দেওয়া হয়েছে।তারা চাল মেপে দেখছেন।
এছাড়াও মোঃ ফরিদ নামের এক ব্যাক্তি চাল নিয়ে বাড়ী যাওয়ার সময় তার রিকশা থেকে চাল নিয়ে গিয়েছেন ওই ইউনিয়নের ছাত্রলীগ সভাপতি সেলিম বাবুল। এবিষয়ে তার নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন এটি চেয়ারম্যান জানে তার সাথে কথা বলেন।
তবে চেয়ারম্যানের কাছে জানতে চাইলে তিনি এবিষয়টি এড়িয়ে যান। চাল বিতরনে দায়িত্বে থাকা ট্যাগ অফিসার কেনো উপস্থিত ছিলেননা জানতে ট্যাগ অফিসার ও উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজার মদন মহন বলেন,উপজেলায় আমার মিটিং থাকায় চেয়ারম্যানকে বলছি তারিখ একদিন পিছানোর জন্য তবে তিনি সেটা না করে চাল বিতরন করছে।চাল বিতরণে কোন অনিয়ম হলে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
চাল বিতরনের অনিয়ম সংক্রান্ত ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তফা মিয়া নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগটি সঠিক নয়।তবে আপনার সাথে দেখা করবো বল্লেন চেয়ারম্যান মোস্তফা মিয়া।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!