1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এলো মৃত জোড়া ডলফিন - দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মনপুরায় মহান একুশে ফেব্রæয়ারী ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পটুয়াখালী শহীদ মিনার বেদিতে সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তারা জুতা পায়ে শ্রদ্ধা নিবেদন বাউফলে তরমুজ গাছ উপড়ে ৬ লাখ টাকার ক্ষতির অভিযোগ লালমোহনে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে চারা রোপণের উদ্বোধন করলেন এমপি শাওন মনপুরায় জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগীতা ক্রীড়া সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত বাউফলে আ’লীগ নেতাকে হত্যা চেষ্টা । ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে মনপুরায় জেলেদের ছিনিয়ে নেওয়া ভিজিএফ চাউল উদ্ধার করে দিলেন ইউএনও মনপুরায় আ’লীগের উদ্যোগে মহান একুশে ফেব্রুয়ারী পালনে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত চরফ্যাশনে ৩২টি অবৈধ ইটভাটার তিনটিতে রহস্যময় অভিযান লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচন ২১ বছর পর তফসিল। বন্ধে নানা ষড়যন্ত্র

কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এলো মৃত জোড়া ডলফিন

দ্বীপকন্ঠ নিউজ ডেস্ক:
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১১ মে, ২০২৩
  • ৪১ বার পঠিত
Spread the love

পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সৈকতে ফের মৃত জোড়া ডলফিন ভেসে এসেছে। এর মধ্যে আট ফুট দৈর্ঘ্যর একটি ইরাবতী এবং তিন ফুট দৈর্ঘ্যের একটি নতুন প্রজাতির ডলফিন বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১১ মে) বেলা ১১টার দিকে কুয়াকাটার জিরো পয়েন্টের পূর্বপাশে ঝাউবন এলাকায় ডলফিন দুটিকে দেখতে পায় কুয়াকাটা ডলফিন রক্ষা কমিটির সদস্য জুয়েল রানা। এর আগে গত ৪ মে সৈকতের পর্যটন পার্ক সংলগ্ন এলাকায় সাত ফুট লম্বা একটি মৃত ইরাবতী ডলফিন ভেসে এসেছিল।

জুয়েল বলেন, সকালে সৈকত থেকে গঙ্গামতি যাওয়ার পথে ডলফিন দুটিকে এখানে পড়ে থাকতে দেখি। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, এগুলো জোয়ারের সঙ্গে এসেছে। তবে এখন পর্যন্ত যতগুলো ডলফিন ও তিমি মৃত অবস্থায় এসেছে তার মধ্যে এই ছোটটা একটু ভিন্ন প্রজাতির মনে হচ্ছে। কুয়াকাটা ডলফিন রক্ষা কমিটির তথ্যমতে, চলতি বছরে চারটি এবং ২০২২ সালে ১৯টি মৃত ও জীবিত ডলফিন ভেসে এসেছে।

সমুদ্রের নীল অর্থনীতি, উপকূলের পরিবেশ-প্রতিবেশ এবং জীববৈচিত্র্য নিয়ে কাজ করা গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ল্ডফিশের ইকোফিশ-২ বাংলাদেশ প্রকল্পের সহযোগী গবেষক সাগরিকা স্মৃতি বলেন, আট ফুট লম্বাটা মূলত ইরাবতী প্রজাতির ডলফিন। আর ছোটটি কোন প্রজাতির তা নির্ণয় করা কঠিন হচ্ছে। আমরা গবেষণা করছি, তবে মনে হচ্ছে এটিও ইরাবতীই হবে।

তিনি বলেন, ডলফিনগুলোর শরীরের প্রায় ৫০-৬০ শতাংশ পচে গেছে। তবে এরা ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় মারা গেলেও জোয়ারের প্রভাবে এক স্থান থেকে উঠেছে। সমুদ্রের পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ায় সামুদ্রিক প্রাণীগুলো এভাবে মারা যাচ্ছে।বন বিভাগের মহিপুর রেঞ্জ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, ডলফিন রক্ষা কমিটির মাধ্যমে বিষয়টি জেনেছি। আমাদের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের পাঠিয়ে মাটি চাপা দেওয়ার ব্যবস্থা করছি।

 

Please Share This Post in Your Social Media

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!