1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে ছাত্রলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন - দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন

মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে ছাত্রলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

মোস্তাফিজ আকন তালতলী
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৪২২ বার পঠিত
Spread the love

মোস্তাফিজ আকন তালতলী

বরগুনার তালতলীতে মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন রাহাত মিনহাজ নামে এক ছাত্রলীগ নেতা।
বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন তিনি। রাহাত মিনহাজ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বড়বগী ইউনিয়নের শিকারি পাড়া গ্রামের ফারুক হাওলাদারের ছেলে।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ৬ সেপ্টেম্বর উপজেলা শহরের মায়ের দোয়া হোটেলে বসে আমরা নাস্তা খাচ্ছিলাম হঠাৎ বিদ্যুৎ চলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু মহোদয়ের নামে প্রতিষ্ঠিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সাবেক ছাত্রদল নেতা জাহিদুল হক সোহাগ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি ও সরকারের সমালোচনা করলে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি রিয়াজ আহমেদ প্রিন্স ও আমি রাহাত মিনহাজ প্রতিবাদ করলে এ নিয়ে তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে
সোহাগ ফোন করে তার বড়ো ভাই উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোঃ শহিদুল ইসলাম সহ যুবদল
ছাত্রদলের ক্যাডারদের নিয়ে এসে আমাদের খুন জখমের হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে আমাদের জীবনের নিরাপত্তার জন্য প্রধান শিক্ষকের এমন কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে ওইদিন তালতলী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। উক্ত ঘটনা ধামাচাপা চাপা দিতে গত ১১ সেপ্টেম্বর আমাদের বিরুদ্ধে আদালতে মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন। যার কোন সত্যতা নেই। এমন অসত্য, ভিত্তিহীন, হয়রানি মূলক সাজানো মামলা দিয়ে আ’লীগ ও ছাত্রলীগের গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহ্য ও ভাবমূর্তি ক্ষুন্নের তীব্র নিন্দা-প্রতিবাদ ও অবিলম্বে তা প্রত্যহারের দাবি জানিয়েছেন।
তবে এ সকল অভিযোগ অস্বীকার করে জাহিদুল ইসলাম সোহাগ বলেন, আমার ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে চাঁদাবাজি করার কারণে চাঁদাবাজি মামলা করেছি। আমি কোন সময় বিএনপির রাজনীতি করিনি। তার প্রমাণ তারা কখনো দিতে পারবেনা। আমি ছাত্র জীবনে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছি। মুলত চাঁদাবাজি মামলকে ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে তারা।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!