1. admin@dipkanthonews24.com : admin :
লালমোহনে স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় জেল হাজতে পল্লী চিকিৎসক - দ্বীপকন্ঠ নিউজ ২৪
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় সাপের কামড়ে নারীর মৃত্যু বাউফলে ছাগল চোর আটক, এলাকাবাসীর গনধোলাই ‘লঞ্চে সন্তান প্রসব, মা-শিশুর আজীবন ভাড়া ফ্রি’ ভোলা জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ মাহবুব-উল-আলম- শ্রেষ্ঠ থানা লালমোহন লালমোহনে অটোরিকশার চাকায় পৃষ্ট হয়ে ৫ বছরের শিশু নিহত মনপুরায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত মনপুরায় ঘূর্ণীঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে এমপি জ্যাকবের নগদ অর্থ বিতরন বাউফল উপজেলা প্রসাশনের আয়োজনে উপজেলা চেয়ারম্যানদের বরন অনুষ্ঠান বোরহানউদ্দিনে ভিক্ষুককে পিটিয়ে জখম, হামলাকারী যুবক আটক কলাপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্থ্য ৩৬০০ পরিবার পেলো জাপানের খাদ্য সহায়তা

লালমোহনে স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় জেল হাজতে পল্লী চিকিৎসক

জসিম জনি
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৭০৭ বার পঠিত
Spread the love

জসিম জনি

ভোলার লালমোহনে যৌতুকের কারণে স্ত্রীকে নির্যাতনের মামলায় জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে এক পল্লী চিকিৎসককে। উপজেলার লর্ডহার্ডিঞ্জ নতুন বাজারের ঔষধের দোকানদার মো. রাছেল এর বিরুদ্ধে ৪ ফেব্রুয়ারী লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করে তার স্ত্রী জানা-ই কাজরীলতা রত্না।

স্ত্রীকে নির্যাতন ও যৌতুক দাবী করায় রত্না এই মামলা করেন। মামলায় স্বামী রাছেলের বাবা মো. শাজাহান, ভাই রাফেজ সহ আরো দুজনকে বিবাদী করা হয়েছে। মামলার পর লালমোহন থানা পুলিশ রাছেলকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করলে জেল হাজতে পাঠানো হয়। এছাড়া আদালতে হাজির হতে গেলে রাছেলের বাবা ও ভাইকেও জেল হাজতে পাঠানো হয়।

জানা গেছে, লালমোহন পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের মো. কাজল মিয়ার মেয়ে রত্নাকে ২০১৮ সালে লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের শাহজাহানের ছেলে রাছেলের সাথে বিয়ে দেওয়া হয়। বিয়ের পর তাদের রুহি নামে এক সন্তানও জন্ম নেয়। কিন্তু রাছেল পরবর্তীতে তার বাবা ও ছোট ভাইয়ের প্ররোচনায় রত্নার মায়ের নামে পৌরসভায় থাকা ভিটা রাছেলের নামে লিখে নিতে চাপ প্রয়োগ করে। এতে রাজী না হলে রত্নার উপর নির্যাতন শুরু হয়। রাছেল মোবাইল ফোনে বিভিন্ন নারীদের সাথে আপত্তীকর কথোপকথন চালিয়ে আসছে বলেও রত্না অভিযোগ করে। এসব কথোপকথনের স্ক্রীণ সর্ট ও বিভিন্ন নারীদের সাথে ছবি রাছেলের মোবাইল ফোন থেকে উদ্ধার করে রত্না।

যার কারণে রতœাকে গত ৩ বছর ধরে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছে রাছেল। অভিযুক্ত রাছেল গরম পানি দিয়েও ঝলসে দেয় রতœার হাত। এই নির্যাতনে জখম হয়ে কয়েকদফা লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয় রতœা। নির্যাতনের কারণে রতœা শিশু কন্যাকে নিয়ে তার বাবার বাড়ি চলে আসলে রাছেল গত ৩ ফেব্রæয়ারি এসে ঝগড়া সৃস্টি করে। এক পর্যায়ে রতœাকে মারপিট করে রাছেল। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করে রতœা।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো পড়ুন
error: Content is protected !!